পুরুষ প্রেমী

424381_191861590956364_1402471556_n

Bangla Gay Golpo আমার খুব পছন্দের পেজ । আমার গল্পটা প্লিজ পোস্ট করবেন ভাইয়া । এভাবেই বলছিল রিফাত ।
******************************************************************

সবে সন্ধ্যে নেমেছে । এই সময়টা আমার দারুন লাগে । কেমন জানি একটা ঘোর লাগা সময় । ইচ্ছে করে কাওকে বুকে জড়িয়ে ধরতে । কিন্তু আমি ভয়ে কাওকে বলি না । কারণ আমার চাওয়া পাওয়াটা অন্যরকম । আমি যে পুরুষ প্রেমী ! সমাজ তো আমায় মানবে না !
আমি রিফাত । এখন বয়স ২২ চলছে । ঘটনাটা যখন আমি নিউ টেন এর ছাত্র । ছোটবেলা থেকেই সবাই আমাকে সুন্দর বলত । এই নিয়ে আমার কিছুটা অহংকারও ছিল । রাস্তা দিয়ে হেঁটে যাওয়ার সময় খেয়াল করতাম অনেক ছেলেই আমার দিকে তাকিয়ে থাকত । তাদের অনেকের চোখেই আগুন দেখতাম আমি । কামনার আগুন । আমার তখন খুব ভালো লাগত । সবাই বলত আমার ঠোঁট নাকি খুব সুন্দর । বলে রাখা ভালো আমার ঠোঁটগুলো একটু গোলাপি । আমার নিচের ঠোঁটে একটা তিল আছে । যা আমার ঠোঁট গুলো কে আরও আকর্ষণীয় করে তুলেছে । যার কারণে ছেলেরা আমার প্রতি বেশী আকৃষ্ট হতো ।
তবে সেক্স এর ব্যপার যখন বুঝতে সিখেছি তখন থেকেই হ্যান্ড সাম ছেলে দেখলেই আমার ইচ্ছে হতো চুমু খেতে ।
আমাদের বাসায় আমার বড় খালার ছেলে ফাহিম ভাই থেকে পড়াশুনা করত । ফাহিম ভাইয়ার বয়স তখন ২৫ । ভাইয়ার চুলগুলা কাঁধ পর্যন্ত লম্বা । ভাইয়া জিম করত । বিশেষ করে ভাইয়া যখন বাসায় খালি গা থাকত উনার লোমহীন বুক আমার শরীরে জ্বালা ধরাত । বিশেষ করে উনার ফর্শা বুকের শেপ আর বাদামি বোঁটা দেখে যে কোন সমকামী ছেলেই পাগল হবে । ভাইয়া যখন কথা বলার সময় আমার চোখের দিকে চাইত আমার চোখ আতকে যেত । মনে হতো আমি বোধয় হারিয়ে যাচ্ছি ।
একদিন ফাহিম ভাই ভার্সিটি যাবার পর আমি তার রুমে গেলাম । ভাইয়ার টেবিলের উপর রাখা ল্যাপটপ অন করলাম । ল্যাপটপ আতি পাতি করে সার্চ করতে লাগলাম । অবাক করা ব্যপার । ফাহিম ভাইয়ার ল্যাপটপে গে ভিডিও ক্লিপ পেলাম । আমি খুব অবাক হলাম। আমার শরীর গরম হয়ে গেল ।
আরও কিছু পাবার জন্য খজ করতে লাগলাম ।
ভাইয়া অপেরা দিয়ে ব্রাউজ করে। টেবিল থেকে মডেম নিয়ে ল্যাপটপে লাগালাম। যেহেতু ভাইয়া ছাড়া তার ল্যাপটপ কেও ধরে না তাই ফাহিম ভাই তার ফেস বুক আইডি সাইন আউট করে নি ।
আমি ভাইয়ার ফেস বুক আইডির মেসেজে ঢুকে আরও অবাক হলাম ।
ভাইয়া বেশ কয়েকটা ছেলের সাথে সেক্স চ্যাট করেছে । এমনকি কারও কারও আছে আমার সম্পর্কে বলেছে , আমি নাকি অনেক সেক্সি ।
আমার মাথা পুরা আউলাইয়া গেছে । এসব আমি কি দেখছি ?
সেদিনের মত ল্যাপটপ অফ করে চলে আসলাম ।
এবার অপেক্ষার পালা শুরু ।
ফাহিম ভাই ভার্সিটি থেকে আসার পর থেকেই আমি তার দিকে চেয়ে মিটিমিটি হাসি ।
ভাইয়া জিজ্ঞেস করল আমি হাসছি কেন ?
আমি বললাম এম্নি ।
রাতে খাওয়া দাওয়া শেষ করে আমি শুতে গেলাম আমার রুমে । কিন্তু আমার আর ঘুম আসে না ।
বিছানা থেকে উঠে বাবা মায়ের রুমে গিয়ে বললাম, আমার আজ ভয় লাগছে । একা শুতে পারব না ।
মা তখন বললেন, তুমি আজ রাতে তাহলে ফাহিম এর সাথে থাক ।আমি হুব খুশি কারণ আমিতো মনে মনে এটাই চাচ্ছিলাম ।
আমি এক লাফে ভাইয়ার রুমে আসলাম । ফাহিম ভাই তখন ল্যাপটপে কাজ করছে ।
আমি ফাহিম ভাই কে বললাম, ভাইয়া। আমার খুব ভয় করছে । আজ রাতে তোমার সাথে ঘুমাব ।
ফাহিম ভাই ল্যাপটপ স্ক্রিন থেকে মুখ তুলে বললেন, ঠিক আছে । আস ।
আমি বিছানায় শুয়ে পরলাম ।
ফাহিম ভাই উঠে দরজা লাগিয়ে দিল ।
বিছানায় বসে বলল, তুই আজ আমার ল্যাপটপ অন করেছিলি ?
আমি ভয়ে ভয়ে বললাম, হ্যাঁ ।
ফাহিম ভাই আমার উপর ঝাপিয়ে পরে বললেন, বান্দর, তুই সব দেখেছিস আজ !
আমি হাসতে লাগলাম ।
ফাহিম ভাই আমাকে ঝড়ের বেগে কিস করতে লাগলো । আমি কিছু বুঝে উঠার আগেই ।
ফাহিম ভাই আমার ঠোঁট কামড়ে ধরল । মনে হল আমার ঠোঁট ছিরে যাবে ।
আমি আহ করে চিৎকার দিলে ভাইয়া আসতে আসতে আমার জিব চুসে । ঠোঁট চুসে ।
ফাহিম ভাই আরও পাগল হয়ে আমার গালে, গলায় নাক ঘসে । আমার কানের লতিতে চুমু খায় ।
আমি বুঝতে পারি আমার শরীর জেগে উঠছে ।
আমি ভাইয়ার প্যান্ট এর উপর দিয়ে ভাইয়ার ধনটা মুঠো করে ধরি ।
জীবনে প্রথম অন্য কারো ধন ধরলাম ।
ভাইয়া ফুঁসে উঠলো । আমার টি শার্ট টান মেরে খুলে আমার বুকের দুধ গুলা নিয়ে খেলতে লাগলো ।
আহ । সে যে কি আনন্দ । এতো সুখ ! আমার বুকে ছিল ! আমি জানতামই না ।
ভাইয়া তার প্যান্ট খুলে আমার প্যান্ট খুলে মাটিতে ছুরে ফেলে ।
এরপর আছড়ে পরে আমার দুধের উপর ।
দু পা আমার কোমরের দুদিকে দিয়ে জিব আর দাঁত দিয়ে চুষতে থাকে দুধগুল ।
ওর পেনিস তখন আমার নাভিতে ঘষা খাচ্ছে ।
আমি সুখে ফাহীম ভাইয়ার মাথা আরও জোরে দুধে চেপে ধরলাম ।
ফাহীম ভাই আমার পেছনে খুব করে লোশোণ লাগালো ।
এবার জোড়ে জোড়ে তার ডাণ্ডা টা আমাড় ওখানে ঘসতে লাগলো ।
আমি শুধু শরীর মোচড়াচ্ছি ।
এবার ফাহীম ভাই তার ধোনের মাথাটা আমার ওখানে ঢূকালো ।
আমি আহ করে চীৎকার দিলাম ।
বালিশ খামচে ধরলাম ।
ঊহ ।
মনে হোলো আমার পেছনের পাছার ফুটোতে একটা গরম লোহার ডাণ্ডা ঢূকল ।
ফাহীম ভাই আমার পা দুইটা কাঁধে নিয়ে জোড়ে জোড়ে চুদতে লাগলো ।
আমি ব্যথায় আর আনন্দে আহ আহ করতে লাগলাম ।
ভাইয়ার বুকের বোটা দুই হাতের আঙুল দিয়ে খুটতে লাগলাম । আর সাথে সাথে পাছা ঠেলতে লাগলাম ।
আমার পাছা ততোক্ষণে একটু ঢিলা হইসে । তাই আরাম পাচ্ছিলাম ।
আমি ভাইয়ার শক্ত ঊরুতে হাত বুলিয়ে বললাম, আরও জোড়ে করো ।
ফাহীম ভাই তার চোদার ঠাপ বাড়ালো ।
হোঠাট ভাঈয়া আহ আহ করে আমার বুকে আছড়ে পোড়লো ।
আমি বুঝলাম ভাইয়ার বীর্য বেড়িয়েছে ।
সেদিন এর পর থেকে ফাহীম ভাঈয়া আমার বয় ফ্রেন্ড ।

5 thoughts on “পুরুষ প্রেমী

  1. ফাহিম ভাইয়া আমার বুকে ঝড় তুলেছে কালবৈশাখীর চেয়েও প্রলয়ংকরী ।ভাইয়ার জিম করা প্রশস্ত বুকের মাঝে বলিষ্ঠ দু’বা্হুর আলিঙ্গনই পারে তা স্তিমিত করতে ।একমাত্র পন্থা-তাকে আমার বেড ফ্রেন্ড হতে হবে ,PLEASE DO SOMETHING………………….

  2. onek sundor ekta golpo…love ache and also some good sex….loving and caring sex is the best thing….cheap sex valo lage na

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s