স্বপ্ন ভাঙ্গার যন্ত্রণা


আমি ইমন । কলকাতায় থাকি ।
আমি দেখতে শুনতে খুবই সাধারন ।
ফেসবুকে চ্যাট করতে পছন্দ করি । ভালো লাগে বন্ধুত্ব করতে ।
ফেসবুকে চ্যাট করতে এসে বিভিন্ন সময় বিভিন্ন প্রশ্নের সম্মুখীন হয়েছি ।
কেউ জিজ্ঞেস করত , আমি কি চাই ? আমি টপ নাকি বোটম এইসব ।
যাই হোক ।
আমি ঠাণ্ডা মাথায় সবার প্রশ্নের উত্তর দিতাম ।
কিন্তু কারো সাথেই আমার তখনও কোন শারীরিক সম্পর্ক হয় নি ।
কারণ আমি চাইতাম আমার একটা সৎ ভালো লাভার থাকবে যার সাথে আমি সব করব ।
এভাবেই একদিন ফেসবুকে পরিচয় হয় দীপ নামে এক বন্ধুর সাথে ।
প্রতিদিন আমাদের চ্যাট হত । নানা বিষয়ে কথা হত ।
একদিন দীপ আমায় বলে, ইমন । আমি তোমাকে চাই ।
দীপ এর এই কথা শুনে আমি আবেগে আপ্লুত হয়ে যাই ।
আমিও কিছু না ভেবে ওকে বলি, দীপ আমিও তোমায় চাই ।
কারণ আমি মনের ভেতর দীপ কে খুব মিস করতাম । তাই আর এক মুহূর্ত দেরি করিনি ।
যাই হোক ।
আমরা দুজনে দেখা করার সিদ্ধান্ত নিই ।
দুজনের মাঝে বেশ কয়েকবার দেখা হয় । দীপ বলে, ইমন আমি তোমাকে সম্পূর্ণ পেতে চাই ।
আমি ওকে না বলতে পারি না ।
চুপ করে থাকি ।

এরপর থেকে দীপ প্রতিদিন আমাকে সেক্স করার কথা বলে ।
আমি মনে মনে কি করব বুঝে উঠতে পারছিলাম ।
এর মাঝে একটা ঘটনা আমাকে সিদ্ধান্ত নিতে সাহায্য করে ।
একদিন দেখি ফেসবুকের এক বন্ধু দীপ এর প্রোফাইল ওয়ালে লাভার হিসেবে কিছু জিনিস পোস্ট করে । এমনকি সেসব পোস্ট এর মাঝে এমন কিছু ইঙ্গিত ছিল যার মাধ্যমে বুঝা গেল যে ওর আর দীপ এর মাঝে নিয়মিত সেক্স হয় ।
এসব দেখে আমি নিজেকে আর সামলাতে পারি না ।
ভীষণ কষ্ট পাই ।
এতটাই মুষড়ে পরি যে সিদ্ধান্ত নিলাম ফেসবুক ছেড়ে দিব ।
অবশেষে ফেসবুক ছেড়ে দিই ।
নিজেকে এসব থেকে দূরে সরিয়ে নিই ।
বেশ কিছুদিন মোটা মুটি ভালই ছিলাম ।

এরপর কলেজে ভর্তি হই ।
একদিন কলেজে ক্লাস নিতে একজন স্যার আসেন ।
স্যারকে দেখেই আমার বুকের ভেতর কেমন ধুক ধুক করা শুরু হয় ।
স্যার এর কথা বলা । হাঁটা চলা সব আমার মন কেড়ে নেয় ।
আমি বুঝতে পারি যে আমি বোধহয় স্যার এর প্রেমে পড়েছি ।
এর মাঝে আমি কলেজে একটা প্রোগ্রামে নাচ এ অংশগ্রহন করি ।
নাচ শেষে যখন স্টেজ থেকে নামলাম । অনেকেই আমার প্রশংসা করল ।
আমার সবচাইতে ভালো লাগছিল যখন ওই স্যার এসে আমাকে বলল, ইমন তুমি খুব সুন্দর নেচেছ । আর আজ তোমাকে দেখতে অনেক সুন্দর লাগছে ।
আমি স্যার কে ধন্যবাদ দিই ।
এরপর থেকে কলেজে গিয়েই স্যার কে একপলক দেখার জন্য অপেক্ষা করতাম ।
স্যারকে দেখে বুকের মাঝে এত সুখ হত যা বলে বুঝাতে পারব না ।
স্যার কখন আসে। কখন যায় । স্যার টিফিন খায় কিনা সব আমার নখদর্পণে ছিল ।
একদিন ক্লাস শেষে স্যার আমার সাথে বেশ কথা বলল । আমার পড়াশুনার বিষয় নিয়ে ।
কথাবার্তা শেষে স্যার এর সাথে স্যার এর বাসায় গেলাম ।
আমি বুঝতে পারি স্যার হয়ত মনে মনে আমাকে ভালবাসে । কিন্তু বলতে পারে না ।
আমিও মুখ ফুটে কিছুই বলি না ।
স্যার আমাকে তার সেল নম্বর দেয় । উনার সাথে কারণে অকারনে কথা বলি ।
এর মাঝে আমার আর স্যার এর কথা বলা নিয়ে কলেজের দু একজন বন্ধু আমাকে খারাপ কথা বলে । বলে, আমি আর স্যার নাকি গে সেক্স করি । এইসব !
এরপর থেকেই স্যার কেমন জানি বদলে যেতে থাকে ।
আমাকে দেখলেই স্যার এড়িয়ে যান । কথা বলেন না ।
আগের মত ফোন দিলেও কথা বলেন না ।
আমার খুব কষ্ট হয় ।
আমি কেমন করে স্যার কে দেখে ঠিক থাকি ?
আমিতো স্যারএর সাথে সেক্স চাই নি । শুধু ভালবাসতে চেয়েছিলাম । সেটাও হল না ।
আসলে আমার ভাগ্যটাই খারাপ । হাতের মুঠোয় সবকিছু পেয়েও হারিয়ে ফেলি আমি ।
আমি জানি না । আমার বেলায় কেন বার বার এমন হয় ?
আমার চাওয়া পাওয়াটা কি খুব বেশি ছিল ?
কে জানে ?
হয়ত !
এখন আর স্বপ্ন দেখি না । কারণ স্বপ্ন হারানোর যন্ত্রণা যে কত কঠিন একমাত্র যার স্বপ্ন হারিয়েছে সেই জানে !

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s